Login | Register

Edit Log

Previously Was Has Been Updated To
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে। এতে অংশ নেয় গোলাম, ছোট ____ এবং তুরকির জনগন। সাধারন জনগনের মাঝে অনেককে মারা যায়। এই ফিতনা বহু লম্বা হয়। এর পর শান্তি আসে।
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে। এতে অংশ নেয় গোলাম, ছোট ____ এবং তুরকির জনগন। সাধারন জনগনের মাঝে অনেককে মারা যায়। এই ফিতনা বহু লম্বা হয়। এর পর শান্তি আসে।


2016-08-25 00:27:39 habib@...
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে। এর পর চড়ে
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে। এতে অংশ নেয় গোলাম, ছোট ____ এবং তুরকির জনগন। সাধারন জনগনের মাঝে অনেককে মারা যায়। এই ফিতনা বহু লম্বা হয়। এর পর শান্তি আসে।
2016-08-24 23:47:40 @::1
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে। এর পর
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে। এর পর চড়ে
2016-08-24 23:32:29 @::1
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে।
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে। এর পর
2016-08-24 23:31:27 @::1
রোমান সিমান্তের কাছে যে মুসলিমরা যুদ্ধে নিহত হয়েছে তাদের উপর খরচ না করে, রোমান সিমান্তের কাছের বিদ্রোহীদের উপর খরচ করার কারনে পর্বতের চারিধার থেকে, এবং আহওয়াজ এলাকা, পারস্য এবং অন্যান্য এলাকা থেকে প্রচুর রোম বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য জমা হয়। একারনে খলিফা উনার সন্যসামন্ত নিয়ে অভিযান চালাতে দেরি করে। সাধারন মানুষ তাতে ক্রোধান্বিত হয়ে এবং উপরোক্ত কাজ করে।

রবিউল আউয়াল মাসের নয় দিন বাকি থাকতে সাম্মারার জনগন জেলখানায় আক্রমন করে। জেলখানার সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেনাবাহিনী থেকে এক দল তাদের কাছে আসে। এদেরকে ডাকা হতো "জুরাফা"। জনসাধারন তাদের পরাজিত করে।
2016-08-24 14:30:26 @::1
[হিজরি ২৪৯ সাল]
[এই বছর যে ঘটনাগুলো ঘটেছে]

এর পর আরম্ভ হয় হিজরি ২৪৯ সাল।

এই বছর রজব মাসের মাঝামাঝি শুক্রবার দিন, মুসলিমদের সৈন্যদল তুরস্কের মালাতইয়া এর কাছাকাছি রোমান সৈন্যদের মুখোমুখি হয়। বিশাল যুদ্ধ শুরু হয়। দুপক্ষেরই অনেক মানুষ মারা যায়। এখানে মুসলিমদের আমির উমর বিন আব্দুল্লাহ বিন আল-আকতা মারা যান। এবং উনার সাথে মুসলিমদের মাঝ থেকে এক আরো হাজার লোক মারা যায়। একই ভাবে আরেকজন আমির, আলী বিন ইয়াহইয়া আল-আরমানী মারা যান মুসলিমদের পক্ষ থেকে টহল দেবার সময়। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। এই দুই আমির ইসলামের সবচেয়ে বড় সাহায্যকারীদের অন্তর্ভুক্ত ছিলেন।

এই বছর সফর মাসের এক তারিখে বাগদাদে একটা বিশাল ফিতনা আরম্ভ হয়। এর কারন হলো খিলাফতের কাজে আমির-উমরাদের আধিপত্য, মুতাওয়াক্কিলে হত্যা, মুনতাসির এবং উনার পরবর্তিতে মুসতায়িনকে অপছন্দ করে সাধারন জনগণ অসন্তুষ্ট হয়ে যায়। জনগন প্রতিবাদমুখি হয় জেলখানায় গিয়ে সবাইকে মুক্ত করে দেয়। সেতুর কাছে এসে একটা সেতু কেটে দেয়, অন্যটা আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়। তারা অস্ত্রসজ্জার ডাক দেয় এবং অনেক মানুষ আর অসংখ্য দল এসে যোগ দেয়। এর পর তারা অসংখ্য বাসায় লুট পাট চালায়। এটা বাগদাদের পূর্বপ্রান্তে ঘটে। এইভাবে বাগদাদের বামপন্থিরা অনেক মাল জমিয়ে ফেলে।
2016-08-24 07:14:19 @::1
Gilam
Gilam 2
2016-08-24 06:55:13 @::1
mila
Gilam
2016-08-24 06:49:34 @::1
mila
mila
2016-08-24 00:32:33 @::1

mila
2016-08-24 00:32:12 @::1
রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেছেন:
আল্লাহ তায়ালা প্রথম যা সৃষ্টি করেছেন সেটা হলো কলম। এর পর উনি তাকে বললেন: লিখ। এর পর কিযামত পর্যন্ত যা হবে তা লিখে ফেললো।
2016-08-23 17:31:02 @::1
hello world
This is good.

2016-08-23 17:27:34 @::1
hello world
hello world
This is good.
2016-08-23 17:26:00 @::1
hello world
2016-08-23 16:53:44 @::1

Execution time: 0.02 render + 0.00 s transfer.