ফতোয়া: মুফতি মেরাজ তাহসিন

ফতোয়া নং: ৪৮১৭
তারিখ: ১২-মার্চ-২০১৭
বিষয়:

আরবী লেখাযুক্ত জুতা পরিধান করা ৷ 

প্রশ্ন
সৌদি আরব থেকে আমার এক বন্ধু আমার জন্য এক জোড়া জুতা পাঠিয়েছে ৷ জুতায় আরবীতে নাম লিখা ছিলো। যেমন আমাদের দেশে জুতায় ‘বাটা এপেক্স ইত্যাদি নাম লিখা থাকে। জানার বিষয় হলো, এসব জুতা কি পরিধান করার বিধান কি?
উত্তর
জুতায় কুরআনের আয়াত বা আল্লাহ ও রাসূল সাঃ এর নাম লেখা থাকলে এসব জুতা পরিধান করা জায়েজ হবে না। সম্পুর্ন হারাম হবে ৷ এবং যারা জুতায় এসব লিখা লিখবে তারা ইসলামের দৃষ্টিতে জঘন্ন অপরাধী ৷ তাদের বিরোদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া উচিত ৷ তবে জুতায় আরবীতে লেখা থাকলেই সেটি কুরআনের আয়াত বা হাদীস, কিংবা আল্লাহ বা রাসূল সাঃ এর নাম হয়ে যায় না। কারন আরবী একটি ভাষা। আমাদের দেশে যেমন বিভিন্ন জিনিষপত্রে কোম্পানীর নাম লেখা থাকে, তেমনি যেসব দেশের ভাষা আরবী তারা আরবীতেই নিজ কোম্পানীর নাম লিখে থাকে। তাই কুরআনের আয়াত বা হাদীস, কিংবা আল্লাহ ও রাসূল সাঃ এর নাম সম্বলিত জুতা না হলে তা পরিধান করতে কোন সমস্যা নেই।
তাহতাবী আলাল মারাকী পৃঃ ১১৮; ফাতাওয়াযে হিন্দিয়া ৫/৩২২ ৷
মুফতী মেরাজ তাহসীন মুফতীঃ জামিয়া দারুল উলুম দেবগ্রাম ব্রাক্ষণবাড়িয়া ৷

উত্তর দিয়েছেন : মুফতি মেরাজ তাহসিন
এ বিষয়ে আরো ফতোয়া:
এ বিভাতের বাকি সকল ফতোয়া এখানে পাবেন : বিভাগ খাওয়া-পোশাক