ফতোয়া: মুফতি মেরাজ তাহসিন

ফতোয়া নং: ৪৭৯০
তারিখ: ২-ফেব্রুয়ারি-২০১৭
বিষয়:

তাহাজ্জুদ নামাযের রাকাত সংখ্যা ৷ 

প্রশ্ন
তাহাজ্জুদ নামায কত রাকাত? আমার আম্মু সবসময় বার রাকাত পড়েন ৷ তাহাজ্জুদ নামায নাকি বার রাকাত৷ এটা কতটুকু সঠিক ?
উত্তর
রাসূল সাঃ তাহাজ্জুদ নামায নামায কখনো চার রাকাত পড়তেন, কখনো ছয় রাকাত পড়তেন। কখনো আট রাকাত পড়তেন। কখনো দশ রাকাত পড়তেন।
তাহাজ্জুদের নামায ১০ রাকাত পর্যন্ত পড়া রাসূল সাঃ থেকে সহীহ হাদীসে পাওয়া যায়।
যেমন,আবু সালামা ইবনে আব্দুর রহমান বলেন, আমি হযরত আয়েশা রা. কে জিজ্ঞাসা করলাম যে, রমযানে নবীজীর নামায কেমন হত? তিনি উত্তরে বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম রমযানে এবং রমযানের বাইরে এগার রাকাতের বেশি পড়তেন না। প্রথমে চার রাকাত পড়তেন, যার সৌন্দর্য ও দীর্ঘতা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করো না! এরপর আরও চার রাকাত পড়তেন, যার সৌন্দর্য ও দীর্ঘতা তো বলাই বাহুল্য! এরপর তিন রাকাত পড়তেন।
সহীহ বুখারী ১/১৫৪, হাদীস ১১৪৭; সহীহ মুসলিম ১/২৫৪, হাদীস ৭৩৮৷
আব্দুল্লাহ ইবনে আবী কাইস থেকে বর্নিত তিনি বলেন, আমি হযরত আয়েশা রা.-এর কাছে জিজ্ঞাসা করলাম যে, নবীজী বিতর কত রাকাত পড়তেন? উত্তরে তিনি বলেন, চার এবং তিন, ছয় এবং তিন, আট এবং তিন, দশ এবং তিন। তিনি বিতরে সাত রাকাতের
কম এবং তের রাকাতের অধিক পড়তেন না।
সুনানে আবু দাউদ ১/১৯৩, হাদীস ১৩৫৭; মুসনাদে আহমদ ৬/১৪৯, হাদীস ২৫১৫৯৷
তবে দশ রাকাতের চেয়ে বেশি পড়া যাবে না, এমন নয়। যেহেতু তাহাজ্জুদ নফল নামায তাই যত বেশি পড়া যায় ততই সওয়াব। তাই আপনার আম্মু বার রাকাত পড়লে কোন কোন সমস্যা নেই, তবে তাহাজ্জুদ নামায বার রাকাত, এমন মনে করা যাবে না ৷
মুফতী মেরাজ তাহসীন মুফতীঃ জামিয়া দারুল উলুম দেবগ্রাম ব্রাক্ষণবাড়িয়া ৷
01756473393

উত্তর দিয়েছেন : মুফতি মেরাজ তাহসিন
এ বিষয়ে আরো ফতোয়া:
এ বিভাতের বাকি সকল ফতোয়া এখানে পাবেন : বিভাগ আদব-ব্যবহার