ফতোয়া: মুফতি মেরাজ তাহসিন

ফতোয়া নং: ৪৭৪৬
তারিখ: ৩--২০১৬
বিষয়:

স্বামীর পায়ের নিচে স্ত্রীর জান্নাত’ কথাটির সত্যতা৷

প্রশ্ন
ভাইয়া আমি জানতে চাই, ‘স্বামীর পায়ের নিচে স্ত্রীর জান্নাত’ এ কথাটি সত্য? এটি কি হাদীস?
উত্তর
এই কথাটির আরবী হলো, الجنة تحت اقدام الازواج হুবহু এ শব্দে-বাক্যে হাদীস নয়৷ অনেকে কথাটাকে হাদীস হিসেবে পেশ করে থাকে। যা উচিত নয়৷
তবে কিছু হাদীসে এর মর্মার্থ পাওয়া যায় বিধায় কথাটাকে সম্পূর্ণ মিথ্যাও বলা যাবেনা। যেমন এক হাদীসে এসেছে- একবার এক নারী সাহাবী রাসূলের কাছে এলেন নিজের কোনো প্রয়োজনে। যাওয়ার সময় রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে জিজ্ঞেস করলেন, তোমার কি স্বামী আছে? তিনি বললেন, জী, আছে। নবীজী বললেন, তার সাথে তোমার আচরণ কেমন? সে বলল, আমি যথাসাধ্য তার সাথে ভালো আচরণ করার চেষ্টা করি। তখন নবীজী বললেন,
ﻓﺎﻧﻈﺮﻱ ﺃﻳﻦ ﺃﻧﺖ ﻣﻨﻪ، ﻓﺈﻧﻤﺎ ﻫﻮ ﺟﻨﺘﻚ ﻭﻧﺎﺭﻙ
তার সাথে তোমার আচরণের বিষয়ে সজাগ থাকো, কারণ সে তোমার জান্নাত বা তোমার জাহান্নাম।
মুআত্তা মালেক, হাদীস ৯৫২; মুসনাদে আহমাদ, ৪/৩৪১
হাদীস ১৯০০৩; মুসতাদরাকে হাকেম, হাদীস ২৭৬৯৷
অপর হাদীসে এসেছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,
ﺇﺫﺍ ﺻﻠﺖ ﺍﻟﻤﺮﺃﺓ ﺧﻤﺴﻬﺎ ، ﻭﺻﺎﻣﺖ ﺷﻬﺮﻫﺎ ، ﻭﺣﺼﻨﺖ ﻓﺮﺟﻬﺎ ، ﻭﺃﻃﺎﻋﺖ ﺯﻭﺟﻬﺎ ﻗﻴﻞ ﻟﻬﺎ : ﺍﺩﺧﻠﻲ ﺍﻟﺠﻨﺔ ﻣﻦ ﺃﻱ ﺃﺑﻮﺍﺏ ﺍﻟﺠﻨﺔ ﺷﺌﺖ
নারী যখন পাঁচ ওয়াক্ত নামায ঠিকমত আদায় করবে, রমযানের রোযা রাখবে, আপন লজ্জাস্থানের হেফাযত করবে, স্বামীর আনুগত্য করবে তখন সে জান্নাতের যেই দরজা দিয়ে ইচ্ছা প্রবেশ করতে পারবে।
সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদীস ৪১৬৩৷ উত্তর প্রদানে মুফতী মেরাজ তাহসীন মুফতীঃ মাজিয়া দারুল উলুম দেবগ্রাম ব্রাক্ষণবাড়িয়া৷
01756473393

উত্তর দিয়েছেন : মুফতি মেরাজ তাহসিন
এ বিষয়ে আরো ফতোয়া:
এ বিভাতের বাকি সকল ফতোয়া এখানে পাবেন : বিভাগ স্বামী-স্ত্রী